ব্রেকিং:
Home » খেলা » আউটের মিছিলে সেই লিটনই টাইগারদের দ্বিতীয় দিনের আশা

আউটের মিছিলে সেই লিটনই টাইগারদের দ্বিতীয় দিনের আশা

চট্টগ্রাম টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে ৯৪ রানের ম্যাচ বাঁচানো এক ইনিংস খেলেছিলেন উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান লিটন দাস। ওই ম্যাচের নায়ক মুমিনুল হক আজ ০ রানেই দৃষ্টিকটুভাবে রান-আউট হয়েছেন।

আউট হয়েছেন তামিম, ইমরুল, মুশফিক সবাই। বিপরীতে দাঁড়িয়ে মেহেদী মিরাজকে নিয়ে দিন শেষ করলেন লিটন। ঢাকা টেস্টের প্রথম দিন শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ৫৬ রান। এর আগে ২২২ রানে অল-আউট হয় শ্রীলঙ্কা। লিটন-মিরাজরাই আগামীকাল ম্যাচের দ্বিতীয় দিনে স্বপ্নে দেখাবে বাংলাদেশকে।

শ্রীলঙ্কার করা ২২২ রানের জবাবে প্রথম ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নেমে দলীয় ৪ রানেই ২ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। ইনিংসের প্রথম ওভারে সুরঙ্গা লাকমালের বলে কট অ্যান্ড বোল্ড হয়ে যান তামিম ইকবাল (৪)। পরের ওভারেই রান-আউট হয়ে যান চট্টগ্রাম টেস্টে জোড়া সেঞ্চুরি করা মুমিনুল হক (০)। দলীয় ১২ রানে টাইগার দূর্গে তৃতীয় আঘাত হানেন লাকমল।

বোল্ড হয়ে ফিরে যান মুশফিকুর রহিম (১)। লিটন দাসকে নিয়ে লড়ে যাচ্ছিলেন ইমরুল কায়েস। ৫৫ বলে ১৯ রানের ইনিংসটি শেষ হয় দিলরুয়ান পেরেরার বলে এলবিডাব্লিউ হয়ে। লিটন দাস (২৪) ও মেহেদী মিরাজ (৫) মিলে দিন শেষ করেন।
এর আগে আজ বৃহস্পতিবার চলতি টেস্ট সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট ম্যাচে রাজধানীর মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টসে জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে মাত্র ৬৫.৩ ওভারে ২২২ রানে অল-আউট হয়ে যায় শ্রীলঙ্কা। দলীয় ১৪ রানেই দীর্ঘ ৪ বছর পর জাতীয় দলে ফেরা আব্দুর রাজ্জাকের ঘূর্ণিতে এবং লিটন দাসের দ্রুততায় স্টাম্পড হয়ে যান করুনারত্নে (৩)। এরপর ৪৭ রানের জুটি গড়ে বিপর্যয় সামাল দেওয়ার চেষ্টা করেন কুশল মেন্ডিস আর ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা। এমন সময় মঞ্চে আসেন তাইজুল। তার ঘূর্ণিতে সাব্বির রহমানের তালুবন্দি হয়ে ফিরেন ধনাঞ্জয়া (১৯)।

ইনিংসের ২৮তম ওভারে পুনরায় মঞ্চে আবির্ভাব রাজ্জাকের। প্রথম বলে দানুশকা গুনাথিলাকার (১৩) দেওয়া ক্যাচটি অবিশ্বাস্য দক্ষতায় তালুবন্দি করলেন মুশফিকুর রহিম। পরের বলেই অধিনায়ক দিনেশ চান্দিমালকে (০) বোল্ড করে দেন রাজ্জাক। লাঞ্চের পর শ্রীলঙ্কার দলীয় ১০৯ রানে ওপেনার কুশল মেন্ডিস (৬৮) রাজ্জাকের চতুর্থ শিকার হন। ১ রানের ব্যবধানে উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান নিরোশান ডিকাভেলাকে (১) বোল্ড করে দেন তাইজুল।

১১০ রানে ৬ উইকেট হারানোর পর প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করেছিলেন দিলরুয়ান পেরেরা এবং রোশান সিলভা। ৫২ রানের এই জুটি ভাঙেন তাইজুল ইসলাম। এই ঘূর্ণি বোলারের বলে পেরেরার ক্যাচ নেন মুমিনুল হক। রিভিউ নিয়েও বাঁচতে পারেননি দিলরুয়ান পেরেরা। ১৬২ রানে ৭ম উইকেটের পতন ঘটে শ্রীলঙ্কার।

স্পিনারদের স্বর্গরাজ্যে একমাত্র পেসার হিসেবে আড়ালেই পড়ে গিয়েছিলেন মুস্তাফিজুর রহমান। রান দিতে মহা কিপ্টেমি করার পরও মিলছিল না উইকেট। অবশেষে ইনিংসের ৫৮তম ওভারে সেই আক্ষেপ ঘুচল। আকিলা ধনাঞ্জয়াকে (২০) মুশফিকুর রহিমের তালুবন্দি করলেন কাটার মাস্টার। এক ওভার পরেই সেই মুশফিকের হাতেই ধরা পড়লেন রঙ্গনা হেরাথ। ৫৬ রান করা রোশেন সিলভা তাইজুলের বলে লিটন দাসের হাতে ক্যাচ দেওয়ার সাথে সাথেই ২২২ রানে থামল শ্রীলঙ্কার প্রথম ইনিংস। ৪টি করে উইকেট নিলেন রাজ্জাক আর তাইজুল। হাড়কিপ্টে মুস্তাফিজ ১১ ওভারে ৪ মেডেনসহ মাত্র ১৭ রানে তুলে নিলেন ২ উইকেটে।

মন্তব্য

আপনার ইমেইল গোপন থাকবে - আপনার নাম এবং ইমেইল দিয়ে মন্তব্য করুন, মন্তব্যের জন্য ওয়েবসাইট আবশ্যক নয়

*

Open

Close