ব্রেকিং:
Warning: mysql_query(): Unable to save result set in /home/dnn/public_html/wp-includes/wp-db.php on line 1889
Home » খেলা » একদিনে দুইবার ব্যাটিং করে গিনেস বুকে রেকর্ড করা : পাঠক প্রতিক্রিয়া :পড়ুন বিস্তারিত

একদিনে দুইবার ব্যাটিং করে গিনেস বুকে রেকর্ড করা : পাঠক প্রতিক্রিয়া :পড়ুন বিস্তারিত

স্পোর্টস ডেস্ক: দ্বিতীয় টেস্টে দক্ষিণ আফ্রিকা যখন ব্যাট করছিল, ব্লুমফন্টেইনের উইকেটকে মনে হচ্ছিল ব্যাটিং বান্ধব। আবার সেখানে বাংলাদেশ দল যখন ব্যাট হাতে নামল, মনে হলো পুরোপুরি বোলিং বান্ধব উইকেট। একপর্যায়ে ৬১ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে ভয়াবহ ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে বাংলাদেশ। ষষ্ঠ উইকেটের পতনের পর ফেসবুকের পক্ষ থেকে পাঠক প্রতিক্রিয়া জানতে চাই আমরা। প্রচুর পাঠক আমাদের আহ্বানে সাড়া দিয়ে সেখানে মন্তব্য করেন। অনেকেই হতাশা লুকোতে পারেননি, অনেকে বিরক্তি প্রকাশ করেছেন। কেউ কেউ বুদ্ধিদীপ্ত মন্তব্য করেছেন।

তানভীর মিরান লিখেছেন, ‘নামের ওপর খেলে যাচ্ছে একেকজন। সমস্যা নাই, বিপিএলে লাখ লাখ টাকা তো পকেটে আসছেই। কোনো জবাবদিহি নেই। ব্যাটিং পিচে বোলিং নিচ্ছে, ইচ্ছেমতো আউট হচ্ছে, গুরুত্বপূর্ণ সফরে বিশ্রাম নিচ্ছে, ফর্মে থাকা প্লেয়াররা বাইরে বসে খেলা দেখছে।’ খেলোয়াড় নির্বাচনে রাজনৈতিক প্রভাব দেখছেন কেউ কেউ, মুশফিকের অধিনায়কত্ব নিয়েও উঠছে প্রশ্ন। মো. মনোয়ার ফাহিম লিখেছেন, ‘খেলার ভেতর রাজনৈতিক প্রভাব বন্ধ করা উচিত, সেই সঙ্গে মুশফিককে অধিনায়কত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়া হোক।’ ঘরোয়া ক্রিকেট থেকে প্রতিভাবানদের সুযোগ দেওয়া পক্ষে অনেক পাঠক। তানভীর আলম সিদ্দিকী লিখেছেন, ‘প্রতিক্রিয়া দিতে দিতে তো দর্শক ক্লান্ত, ঘরোয়া ক্রিকেটের পারফরমাররা জাতীয় দলে ঢুকতেও পারছেন না।’ নাজিম খান লিখেছেন, ‘অবাধ দলীয়করণ প্রকৃত মেধাকে বিকশিত হতে দেয় না। বাংলাদেশের খেলায় তার প্রতিফলন জাতি দেখছে।’
এমন পরিস্থিতিতে মজাও করেছেন কেউ কেউ। মো. সানাউল করিম লিখেছেন, ‘মুশফিকের ভাবনা একদিনে দুইবার ব্যাটিং করে গিনেস বুকে রেকর্ড করা। তো হয়ে যাক না একটা গিনেস রেকর্ড!!! ‘ হারুন আল কাইউম লিখেছেন, ‘বিদেশে গিয়ে বেইজ্জতির দরকার নেই। ঘরের ছেলেরা ঘরে ফিরে এসো, বারান্দায় অনেক খেলার জায়গা আছে…’। রাসেল আহমেদের মন্তব্যটিও ছিল মজার। তিনি লিখেছেন, ‘খেলোয়াড়দের দেশে ফিরিয়ে এনে রোহিঙ্গাদের সেবা করার কাজে নিযুক্ত করা হোক।
অবশ্য আশাবাদী মন্তব্যও করেছেন অনেক পাঠক। দলের খারাপ সময়েও তাদের সমর্থন উঠিয়ে নেবেন না, সেরকম অঙ্গীকারও করেছেন কয়েকজন। নাহিয়ান শুভ লিখেছেন, ‘বাংলাদেশ একটা ভালো দল। দু এক ম্যাচে খারাপ সব দলই করে থাকে। এ জন্য হাল ছাড়ার কিছু নেই। পরের ম্যাচে ভালো করতে হবে। মাহমুদুর রহমান লিখেছেন, ‘হতেই পারে। পাশে আছি টাইগারদের, যেমন থাকি প্রতিটি জয়ে।’
দলের এমন পরিস্থিতিতে অধিনায়ককে এবং খেলোয়াড়দের অনেকে দায়ী করলেও কেউ কেউ তাদের পাশেও দাঁড়িয়েছেন, ফোরকান আহমেদ লিখেছেন, ‘ভাই, অধিনায়ককে দোষ দেওয়ার আগে বা খেলোয়াড়দের দোষ দেওয়ার আগে একবার দলটার দিকে তাকান তো। কী অগোছালো একটা দল দিয়েছে অধিনায়ককে, তার ওপর তিনি একজন কিপার কিন্তু কিপিং করতে পারবেন না।’
বিদেশে, কঠিন কন্ডিশনে খেলাটা যে খুব সহজ নয়, সে কথাও মনে করিয়ে দিয়েছেন কোনো কোনো পাঠক। মাসুদ রানা লিখেছেন, ‘আমার এতে কোনো মাথাব্যথা নেই, কারণ বিদেশের মাটিতে ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কার দলও কখনো পেরে ওঠেনি, আর বাংলাদেশ তো কেবল হাটি হাটি পা করে চলা শুরু করেছে।
খেলা নিয়ে পাঠকদের আগ্রহ দেখে আবারও তাদের ক্রিকেট অনুরাগেরই পরিচয় পাওয়া গেল। নেতিবাচক মন্তব্যও তারা করেছেন আসলে তারা টাইগারদের কাছে আরও ভালো ক্রিকেট প্রত্যাশা করেন বলেই। প্রত্যাশা আর প্রাপ্তির এ সমীকরণ কি মেলাতে পারবে বাংলাদেশ দল?

মন্তব্য

আপনার ইমেইল গোপন থাকবে - আপনার নাম এবং ইমেইল দিয়ে মন্তব্য করুন, মন্তব্যের জন্য ওয়েবসাইট আবশ্যক নয়

*

Open

Close