Home » এক্সক্লুসিভ » কে এই নুহ, ২০২১ সালে কী ঘটবে বলে দিলেন

কে এই নুহ, ২০২১ সালে কী ঘটবে বলে দিলেন

মানুষটির বসবাস ভবিষ্যৎকালে। উন্নত প্রযুক্তির ডানায় ভর করে করেছেন সময় পরিভ্রমণ। ২০২১ সাল থেকে নিমিষেই চলে এসেছেন ২০১৭-তে। আর জানিয়েছেন আগামী কয়েক বছরের চাঞ্চল্যকর কিছু তথ্য।

প্যারানরমাল এলিট নামের একটি ওয়েবসাইটের কাছে এসব দাবি করেছেন নিজেকে ‘নুহ’ নামে পরিচয় দেওয়া এক ব্যক্তি। নিজের একটি ভিডিও বার্তাও পাঠিয়েছেন ওয়েবসাইটটির কাছে।

ভিডিওটিতে নুহ বলেন, তীব্র মানসিক চাপ ও দুশ্চিন্তায় রয়েছেন তিনি। ২০২১ সালে সরকারের একটি প্রকল্পে কাজ করেন। গুপ্তহত্যার ভয়ে পালিয়ে এসে দক্ষিণ আমেরিকার একটি দেশে বসবাস করছেন তিনি।

লন্ডনভিত্তিক সংবাদমাধ্যম দি ইনডিপেনডেন্ট জানায়, ভিডিও বার্তায় নুহ নামের ওই ব্যক্তির চেহারা অস্পষ্ট করে দেওয়া হয়েছে। পরিবর্তন করে দেওয়া হয়েছে কণ্ঠস্বরও। সেখানে তিনি জানান, ২০২১ সালের আগে বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন ঘটনার স্বাক্ষী হয়ে আছেন তিনি। নিজ মুখে বর্ণনা দিয়েছেন এমন কয়েকটির।

নুহ জানান, তাঁর বয়স ৫০ বছর। কিন্তু নতুন আবিষ্কৃত এক ওষুধ নেওয়ার ফলে তাঁকে দেখে ২৫ বছর বয়সী মনে হয়। তিনি জানান, ২০০৩ সালেই আবিষ্কার হয়েছে সময় পরিভ্রমণের পদ্ধতি। কিন্তু ২০২৮ সালের আগে সেটি সাধারণ মানুষের ব্যবহারের জন্য খুলে দেওয়া হবে না।

নুহ নামের ওই কথিত ভবিষ্যৎমানবের বক্তব্য অনু্যায়ী-

১. ২০২০ সালে দ্বিতীয় মেয়াদের মতো যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হবেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

২. ২০২১ সালের মধ্যে বিদ্যুৎশক্তিচালিত এমন এক ধরনের গাড়ি বাজারে আসবে, যা একবার চার্জ দিলে টানা ৬০০ কিলোমিটার চলতে পারবে।

৩. ‘গুগল গ্লাস’-এর মতো এক ধরনের প্রযুক্তি বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়বে।
এনটিভি

পদত্যাগ করবেন না মুগাবে

জিম্বাবুয়ের গৃহবন্দী প্রেসিডেন্ট রবার্ট মুগাবের ওপরে পদত্যাগের জন্য ব্যাপক চাপের মাঝেও, তিনি ক্ষমতা ছাড়েছন না বলে এক ঘোষণায় জানিয়ে দিয়েছেন।
জাতীর উদ্দেশে টেলিভিশনে দেয়া ভাষণে, পদত্যাগ করার ঘোষণা দেবার বদলে উল্টো আসন্ন কংগ্রেসে নিজের জানু-পিএফ পার্টিকে নেতৃত্ব দেবার আকাঙ্ক্ষার কথা জানিয়েছেন তিনি ।

সরাসরি প্রচারিত ভাষণে তিনি বলেন, আসছে ডিসেম্বরে তার পার্টির কংগ্রেসে তিনি সভাপতিত্ব করবেন। “এখন থেকে কয়েক সপ্তাহের মধ্যে যে কংগ্রেস আছে আমি সেখানে সভাপতিত্ব করবো। এটি অবশ্যই কারো দ্বারা পক্ষপাতদুষ্ট হওয়া উচিত নয়। জনগণের চোখে এর ফলাফলকে আপসের মত করে দেখানো ঠিক হবে না”।
নিজের পার্টির কংগ্রেসে নেতৃত্ব দেবার আকাঙ্ক্ষা প্রকাশ করলেও, মি. মুগাবেকে তার পার্টি আগেই বরখাস্ত করেছে এবং পদত্যাগ করার জন্য ২৪ ঘণ্টা সময় বেঁধে দিয়েছে অর্থাৎ আজ সোমবার দুপুর পর্যন্ত সময় বেঁধে দেয়া হয়। পদত্যাগ না করলে, তাকে ইমপিচ বা অভিশংসনেরও হুমকি দিয়েছে দলটি।
সেনারা দেশটির নিয়ন্ত্রণ নেবার পর থেকেই মি. মুগাবের ক্ষমতা দুর্বল হয়ে এসেছে।

তবে, এর পরও তিনি টেলিভিশনের ভাষণে পদত্যাগ না করার ঘোষণায় দেওয়ায় মি. মুগাবের সাবেক মিত্ররা নিন্দা জানিয়েছেন।
এই ঘোষণার প্রতিবাদে বিরোধীরা আবারো রাজপথে নেমে আসবে বলে তারা মনে করছেন।
দু সপ্তাহ আগে মি. মুগাবে সাবেক ভাইস-প্রেসিডেন্ট এমনাঙ্গাগওয়াকে বরখাস্ত করেছিলেন।
এর পর থেকেই জিম্বাবুয়েতে নাটকীয় সব ঘটনা ঘটতে থাকে। তিরানব্বই বছর বয়স্ক মি. মুগাবে যেন তার স্ত্রী গ্রেসকে ভাইস-প্রেসিডেন্ট করতে না পারেন, সেজন্য সামরিক বাহিনী হস্তক্ষেপ করে।
সূত্র: বিবিসি

মন্তব্য

আপনার ইমেইল গোপন থাকবে - আপনার নাম এবং ইমেইল দিয়ে মন্তব্য করুন, মন্তব্যের জন্য ওয়েবসাইট আবশ্যক নয়

*

Open

Close