ব্রেকিং:
Home » বিনোদন » তিন সপ্তাহ দেশি কোনো নতুন ছবি মুক্তি পাচ্ছে না

তিন সপ্তাহ দেশি কোনো নতুন ছবি মুক্তি পাচ্ছে না

বছরের প্রথম মাস শুরু হয় জয়া আহসান অভিনীত ছবি পুত্র দিয়ে।
নতুন বছরে প্রথম দুই সপ্তাহে চারটি বাংলাদেশি ছবি মুক্তি পেয়েছে। কিন্তু এরপর থেকে টানা তিন সপ্তাহে দেশের প্রেক্ষাগৃহগুলোতে আর কোনো দেশি ছবি মুক্তি পায়নি। দুই সপ্তাহ ধরে দেশের প্রেক্ষাগৃহগুলো চলছে ভারত থেকে আমদানি করা ছবির ওপর।

গত ১৯ জানুয়ারি মুক্তি পায় ভারতীয় বাংলা ছবি ‘জিও পাগলা’। এরপর ২৬ জানুয়ারি প্রেক্ষাগৃহে আসে ‘ইন্সপেক্টর নটি কে’। প্রযোজক ও পরিবেশক সমিতির ছবি মুক্তির তালিকা থেকে জানা গেছে, আজ শুক্রবার দেশে কোনো নতুন ছবি মুক্তি পাচ্ছে না। আজ ‘ভালো থেকো’ নামে একটি ছবি মুক্তির কথা থাকলেও সেটির মুক্তিও এক সপ্তাহের জন্য পিছিয়ে যায়। বছরের প্রথম দুই সপ্তাহে ‘পুত্র’, ‘হৈমন্তী’, ‘পাগল মানুষ’ ও ‘দেমাগ’ নামে চারটি ছবি মুক্তি পেয়েছিল। কিন্তু এর কোনোটিই তেমন সাড়া ফেলতে পারেনি। এই বিষয়টিকে চলচ্চিত্রের জন্য খারাপ লক্ষণ বলে মনে করছেন চলচ্চিত্রসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা।


পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার বলেন, বছরের প্রথম দিকেই পরপর তিন সপ্তাহ হলে কোনো নতুন দেশি ছবি নেই-এটা ভাবা যায় না। তিনি মনে করছেন, দেশি ছবির নির্মাণ কমে যাচ্ছে, তাই মুক্তিও কমে যাচ্ছে। এর কারণ হিসেবে এই পরিচালক নেতা বলেন, প্রযোজকেরা না এলে ছবি নির্মাণ হবে কীভাবে? এখন যা অবস্থা, তাতে ছবি হিট বা ফ্লপ-কোনো কিছুতেই বিনিয়োগ ফেরত পাচ্ছেন না প্রযোজকেরা। কারণ ছবি মুক্তির পুরো সিস্টেমেই একটা গলদ আছে। ফলে ছবি মুক্তির পর প্রযোজকেরা লগ্নি করা টাকা ফিরিয়ে নিতে পারছেন না।

একই কথা জানালেন প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান হার্টবিটের চেয়ারম্যান তাপসী ঠাকুর। তিনি বলেন, প্রযোজকেরা যে ছবিই মুক্তি দিচ্ছেন, সেখান থেকেই লোকসান গুনছেন। এভাবে লোকসান দিতে দিতে বড় প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানগুলো কাজ বন্ধ করে দিয়েছে। এমন হলে সিনেমা কীভাবে এগোবে?


টানা তিন সপ্তাহ প্রেক্ষাগৃহে কোনো দেশীয় ছবি মুক্তি না পাওয়ার বিষয়টি খুবই দুঃখজনক বলে মনে করছেন শিল্পী সমিতির সহসভাপতি চিত্রনায়ক রিয়াজ। চলচ্চিত্রের উন্নয়নের জন্য এটা শুভ লক্ষণ নয় বলে মনে করছেন তিনি।

মন্তব্য

আপনার ইমেইল গোপন থাকবে - আপনার নাম এবং ইমেইল দিয়ে মন্তব্য করুন, মন্তব্যের জন্য ওয়েবসাইট আবশ্যক নয়

*

Open

Close