Home » ইসলাম » নিজের নফস বা আত্মাকে নিয়ন্ত্রণ করার জিকির

নিজের নফস বা আত্মাকে নিয়ন্ত্রণ করার জিকির

আল্লাহ তাআলার গুণবাচক নাম (اَلْمَلِكُ) আল-মালিকু। যার অর্থ হলো বাদশা বা অধিপতি। আসমান-জমিন সবই তার হুকুমে নিয়ন্ত্রিত হয়। আল্লাহ তাআলার এ গুণবাচক নামের জিকিরে আত্মা নিয়ন্ত্রিত হয়, মর্যাদা ও সম্মান বৃদ্ধি পায়। এ গুণবাচক নামের জিকিরের ফজিলত অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ; যা তুলে ধরা হলো-

ফজিলত
>> যে ব্যক্তি দৈনিক ৯০ বার আল্লাহর তাআলার গুণবাচক নাম (اَلْمَلِكُ) আল-মালিকু পড়বে; সে ব্যক্তি শুধু ধনীই হবে না বরং রাজা-বাদশাহ বা প্রতাপশালী ক্ষমতাধর ব্যক্তি তার বাধ্য হয়ে যাবে। তার প্রভাব-প্রতিপত্তি ও মান-মর্যাদা বেড়ে যাবে।

>> যে ব্যক্তি (اَلْمَلِكُ) আল-মালিকু-এর সঙ্গে (اَلْقُدُّوْس) আল-কুদ্দুস একত্রিত করে (اَلْمَلِكُ الْقُدُّوْسِ) ‘আল-মালিকুল কুদ্দুস’ গুণবাচক নামের নিয়মিত জিকির করবে; যদি সে রাজা-বাদশাহ (দায়িত্বশীল) হয়, আল্লাহ তাআলা তাঁর রাজ্য, রাজত্ব ও দায়িত্ব ঠিক রাখবেন।

আর যদি রাজা-বাদশা বা দায়িত্বশীল না হয়, তবে ঐ ব্যক্তির নিজের আত্মা নিজের অনুগত হবে। আর যে ব্যক্তি ইজ্জত ও সম্মানের জন্য এ জিকির করবে; তার ইজ্জত ও সম্মান বৃদ্ধি পাবে।


আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে তাঁর গুণবাচক (اَلْمَلِكُ) আল-মালিকু ও (اَلْمَلِكُ الْقُدُّوْسِ) ‘আল-মালিকুল কুদ্দুস’ নামের জিকির করে নিজের নফস তথা আত্মাকে দুনিয়ার সকল অন্যায় কাজ থেকে নিয়ন্ত্রণ করে তাঁর ইবাদাত-বন্দেগির প্রতি মনোযোগী হওয়ার এবং তাঁর নৈকট্য অর্জন করার তাওফিক দান করুন। অধীনস্থদের প্রতি যথাযথ দায়িত্ব পালন করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

মন্তব্য

আপনার ইমেইল গোপন থাকবে - আপনার নাম এবং ইমেইল দিয়ে মন্তব্য করুন, মন্তব্যের জন্য ওয়েবসাইট আবশ্যক নয়

*

Open

Close