Home » Uncategorized » বাংলাদেশকে নিজের দ্বিতীয় বাড়ি মনে করেন হিথ স্ট্রিক।

বাংলাদেশকে নিজের দ্বিতীয় বাড়ি মনে করেন হিথ স্ট্রিক।

দুই বছর বাংলাদেশের পেস বোলিং কোচ হিসেবে কাজ করেছেন তিনি। ছিলেন চন্ডিকা হাথুরুসিংহের সহকারী। তবে ২০১৬ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর পুরনো চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ার পর জিম্বাবুয়ের সাবেক অধিনায়ক হিথ স্ট্রিক আর বাংলাদেশের সঙ্গে চুক্তি নবায়ন করেননি। বিসিবি চাইলেও তিনি চলে যান ভারতের অ্যাকাডেমি দলের কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করার জন্য। সেখান থেকে এখন নিজ দেশের কোচ।

বাংলাদেশ ছাড়ার পর এই প্রথম আবার ঢাকায় এলেন জিম্বাবুয়ের কোচ হয়ে। দুই বছরে এখানকার কিছুই ভোলেননি। এখানকার দায়িত্ব পালনকালে অনেক সাফল্য রয়েছে, প্রতিভা বের করে দেয়ার কৃতিত্ব আছে। এ কারণে, বাংলাদেশকে নিজের দ্বিতীয় বাড়ি হিসেবে আখ্যায়িত করলেন হিথ স্ট্রিক।


ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলার জন্য শুক্রবার কয়েকভাগে ভাগ হয়ে ঢাকায় এসে পৌঁছায় জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট দল। তবে ওইদিন জিম্বাবুয়ের কোনো মিডিয়া সেশন ছিল না। ছিল আজ, শনিবার। মিরপুরে আনুষ্ঠানিকভাবে অধিনায়ক গ্রায়েম ক্রেমারকে সঙ্গে মিয়ে মিডিয়ার সামনে হাজির হন তিনি। সেখানেই সবার আগে মুখোমুখি হন, ‘বাংলাদেশে আবারও আসলেন। তখনকার আসা আর এখনকার আসার মধ্যে পার্থক্য কী?’

জবাবে হিথ স্ট্রিক জানালেন, বাংলাদেশ তার দ্বিতীয় দেশ। তিনি বলেন, ‘ফিরে আসাটা অবশ্যই অনেক ভালো। বিদেশে যেন নিজের বাড়ি। খুব বেশি দিন তো হয়নি, এখানে দুই বছর কাটিযে গেলাম। সুতরাং, আজকের দিনটা দুই বছর আগে কাটানো দিনগুলোর মতোই। এখন বাংলাদেশ এবং শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দারুণ কিছু ক্রিকেট খেলার দিকেই তাকিয়ে আছি।’


হিথ স্ট্রিক জানান, এখানে তার বেশ কিছু ভালো বন্ধু রয়েছে। তারা কারা? ক্রিকেটের বাইরের কেউ নন। নিজেই নাম জানালেন- মাশরাফি, মোস্তাফিজ, তাসকিন এবং রুবেল। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশকে আমি প্রায়ই ফলো করি। এখানে আমার অনেকগুলো ভালো বন্ধুও আছে। মাশরাফি, মোস্তাফিজ, তাসকিন- এমনকি রুবেলকে কোচিং করানোর জন্য অনেক সময় কাটিয়েছি এখানে। আমি চলে যাওয়ার পরও তারা কেমন পারফরম্যান্স করেছে সে সব নিয়মিত দেখতাম।’


Warning: mysql_query(): Unable to save result set in /home/dnn/public_html/wp-includes/wp-db.php on line 1933

মন্তব্য

আপনার ইমেইল গোপন থাকবে - আপনার নাম এবং ইমেইল দিয়ে মন্তব্য করুন, মন্তব্যের জন্য ওয়েবসাইট আবশ্যক নয়

*

Open

Close