ব্রেকিং:
Home » খেলা » বাংলাদেশ-ভারতকে নিয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজে ‘আয়ের ইতিহাস’ গড়ার পথে শ্রীলঙ্কা

বাংলাদেশ-ভারতকে নিয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজে ‘আয়ের ইতিহাস’ গড়ার পথে শ্রীলঙ্কা

বাংলাদেশ এবং ভারতকে নিয়ে নিধাস ট্রফি খেলে নিজেদের ক্রিকেট ইতিহাসে এক সিরিজে আয়ের রেকর্ড গড়ার আশা করছে শ্রীলঙ্কা। শ্রীলঙ্কার ৭০তম স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে এই টুর্নামেন্টের আয়োজন করছে দেশটির বোর্ড। ৪ ফেব্রুয়ারি স্বাধীনতা দিবস হলেও ৬ মার্চ এই টি-টুয়েন্টি টুর্নামেন্টটি শুরু হবে। চলবে ১৮ তারিখ পর্যন্ত।

টুর্নামেন্টটি নির্ধারিত সূচি অর্থাৎ ফিউচার ট্যুর প্রোগ্রাম’র বাইরে। শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড একটি আন্তর্জাতিক স্পোর্টস মার্কেটিং এজেন্সিকে টুর্নামেন্টের সব দায়িত্ব দিয়েছে। বৃহস্পতিবার শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি সুমাথিপালা সাংবাদিকদের বলেন, তারা কমপক্ষে ৬.৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার লাভের আশা করছেন।

‘আমরা আনন্দের সঙ্গে ঘোষণা করতে চাই যে এই টুর্নামেন্ট থেকে বোর্ড সবচেয়ে বেশি আয় করবে। শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ডের ইতিহাসে একটি সিরিজ থেকে এবারই সবচেয়ে বেশি আয় হবে।’

ভারত, বাংলাদেশ, পাকিস্তানের মতো টি-টুয়েন্টি লিগ হয় না শ্রীলঙ্কায়। তাই দেশটির আয়ও অন্যদের চেয়ে কম। সুমাথিপালা বলছেন, তারা সতর্কতার সঙ্গে কয়েক বছর ধরে ক্রিকেটের বিশ্ববাজার পর্যবেক্ষণ করেছেন।
‘আমারা দেখেছি কীভাবে আইসিসি বিশ্বকাপ আয়োজন করে। এবারের নিধাস ট্রফিই শ্রীলঙ্কার সবচেয়ে ভালো টুর্নামেন্ট হবে।’

মোট সাতটি ম্যাচ হবে। সবকটি কলম্বোর আর. প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে। শেষ ১৫-২০ বছর শ্রীলঙ্কা আসলেই খুব একটা আয় করতে পারেনি। কারণ প্রতিটি টুর্নামেন্টের স্বত্ত্ব একটি প্রতিষ্ঠানকে দেয়া হতো। সেখানে টেলিভিশন স্বত্ত্ব, মার্কেটিং স্বত্ত্বসহ সবকিছু অন্তর্ভুক্ত থাকতো। এবার তারা একেক প্রতিষ্ঠানের কাছে একটি করে স্বস্ত্ব বিক্রি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এবং তাতে দারুণ সাড়া মিলেছে।

গত বছর মার্চে বাংলাদেশের শ্রীলঙ্কা সফরের সময় নিধাস ট্রফিতে খেলার আমন্ত্রণ পায় বিসিবি। নির্ধারিত সূচির বাইরে হলেও বাংলাদেশ খেলতে রাজি হয়। রাজি হয় ভারতও।

মন্তব্য

আপনার ইমেইল গোপন থাকবে - আপনার নাম এবং ইমেইল দিয়ে মন্তব্য করুন, মন্তব্যের জন্য ওয়েবসাইট আবশ্যক নয়

*

Open

Close