ব্রেকিং:
Home » এক্সক্লুসিভ » বিএনপি ভাঙার নানামুখী চেষ্টায় সরকার, ফল আসছে না

বিএনপি ভাঙার নানামুখী চেষ্টায় সরকার, ফল আসছে না

খালেদা জিয়াকে কারাগারে ঢুকানোর পেছনে সরকারের যেসব চিন্তা কাজ করছে তার অন্যতম হলো বিএনপিকে ভেঙে ফেলা। এতদিন এই পরিকল্পনার কথা আওয়ামী লীগ অস্বীকার করলেও এবার তার প্রকাশ্যেই স্বীকার করলেন খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম।

বিএনপিতে ভাঙন অবশ্যম্ভাবী বলে মন্তব্য করে কামরুল ইসলাম বলেছেন, ‘দেখার বিষয়, কদিন পরে আপনাদের দল ভাঙে। কতটুকুন সময় লাগে এবং এটা অবশ্যম্ভাবী।’

আজ সোমবার দুপুরে ভাষাসৈনিক গাজীউল হকের ৯০তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন কামরুল ইসলাম। বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট এই আলোচনা সভার আয়োজন করে।

কামরুল ইসলাম বলেন, ‘কোনোরকম উদ্দেশ্য নাই আপনাদের দল ভাঙনের। কিন্তু আপনাদের পদক্ষেপগুলো যেমন : এক দুর্নীতিবাজ জেলে, আরেক দুর্নীতির পথভ্রষ্টকে, ফেরারি আসামিকে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান করে আপনাদের দল ভাঙানোর যে পেরেকটা সেটা আপনারা পুঁতে দিয়েছেন। দেখার বিষয়, কদিন পরে আপনাদের দল ভাঙে। কতটুকুন সময় লাগে এবং এটা অবশ্যম্ভাবী।’

দল বাঁচাতে নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত হওয়ার জন্য বিএনপি নেতাদের প্রতি আহ্বানও জানান মন্ত্রী।
মন্ত্রীর এই কথায়ই স্পষ্ট, আওয়ামী লীগ সব দিক থেকে চেষ্টা করে যাচ্ছে বিএনপিতে ভাঙন ধরানোর। এবং তারা আশাবাদী শিগগিরই সফল হবে।

দু’দিন আগে একই কথা বলানো হয়েছে একটি গোয়েন্দা সংস্থার সহায়তায় তৈরি করা নতুন দল ‘বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী জনতা দল’কে দিয়ে। গত রোববার সংবাদ সম্মেলনে করে বিএনজেপি চেয়ারম্যান মো. ফয়েজ চৌধুরী বলেছিলেন, ‘খালেদা জিয়া ও তারকে রহমানের দুর্ণীতির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির অনেক নেতাসহ শীর্ষস্থানীয়রা আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বিএনজেপিতে যোগ দিবেন। শিগগিরই আনুষ্ঠানিকভাবে তারা যোগ দিবেন বলেও জানান তিনি।

ফয়েজ আরও বলেন, আমরা মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি। রাজাকার ও যুদ্ধাপরাধী মুক্ত দেশ গঠন করতেই এই দলটি গঠন করেছি। আমরা ২০ দলীয় ঐক্যজোট গঠনের উদ্যোগ নিয়েছি। আশাকরি কিছুদিনের মধ্যেই তা হয়ে যাবে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, দলটির সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান কুদ্দুসুর রহমান, কো-চেয়ারম্যান শহিদুর রহমান ও মহাসচিব রেহমান মহসিন প্রমুখ।

কিন্তু ২৪ ঘণ্টা পার হয়েছে, বিএনপি থেকে কেউ অন্য দলে যোগ দেয়নি। বিএনপি থেকে নেতাদের বাগিয়ে নেয়ার চেষ্টা বেশ আগে থেকে চলছেও খালেদা জিয়া জেলে যাওয়ার পর এটা প্রকাশ্য হয়েছে। তবে এখনও পর্যন্ত কারো কাছ থেকে সাড়া না পেয়ে কিছুটা হতাশ সরকারের উচ্চমহল

monitorbd

মন্তব্য

আপনার ইমেইল গোপন থাকবে - আপনার নাম এবং ইমেইল দিয়ে মন্তব্য করুন, মন্তব্যের জন্য ওয়েবসাইট আবশ্যক নয়

*

Open

Close