Home » এক্সক্লুসিভ » ভয়ঙ্কর তথ্য ফাঁস! আর্জেন্টিনার ম্যাচ ছিল পাতানো
EAST RUTHERFORD, NEW JERSEY - JUNE 26: Marcos Rojo of Argentina leaves the field after receiving a red card during the championship match between Argentina and Chile at MetLife Stadium as part of Copa America Centenario US 2016 on June 26, 2016 in East Rutherford, New Jersey, US. (Photo by Omar Vega/LatinContent/Getty Images)

ভয়ঙ্কর তথ্য ফাঁস! আর্জেন্টিনার ম্যাচ ছিল পাতানো

মোটেও ভালো নেই আর্জেন্টিনার খেলোয়াড়রা। কারণ বিশ্বকাপে মেসিরা খেলতে পারবেন কিনা এ নিয়ে দেখা দিয়েছে সংশয়। কারণ সর্বশেষ পেরুর বিপক্ষে ম্যাচটিতে গোল শূন্য ড্র করেছে সাম্পাওলির শিষ্যরা। রাশিয়া বিশ্বকাপের মূলপর্বের টিকেট নিশ্চিত করতে এই ম্যাচে জয়ের বিকল্প ছিল না দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের সামনে।

তবে গুঞ্জন শোনা যায় আর্জেন্টিনার জয় নিশ্চিত করতে এই ম্যাচের ফলাফল আগেই নির্ধারণ করা ছিল। শুধু তাই নয় ম্যাচে জয় পেতে আর্জেন্টাইন তারকা মেসিও নাকি তাদের সঙ্গে প্রতারণা করবেন! এটাও নাকি নির্ধারণ ছিল।

বৃহস্পতিবার পেরুর ক্রীড়া দৈনিক টোডো স্পোর্ট ফাঁস করে চাঞ্চল্যকর এই তথ্য। সেই পত্রিকার প্রচ্ছদে মেসির সঙ্গে ফিফা সভাপতি ও আর্জেন্টাইন ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন (এএফএ) সভাপতির ছবি দিয়ে সংবাদ প্রকাশ করেছে। ‘প্রতারক’ শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত সেই প্রতিবেদনে লেখা হয়েছে, ‘এই তিনজনই আমাদের হাত থেকে ম্যাচটি কেড়ে নেয়ার চেষ্টা করবে। এই তিনজনের হাতেই থাকবে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ। ’

এদিকে ২০১৮ বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনা খেলতে পারবে কিনা তা জানার জন্য অপেক্ষা করতে হবে শেষ ম্যাচ পর্যন্ত। ইকুয়েডরের বিপক্ষে শেষ ম্যাচে জয় পেলেও তাকিয়ে থাকতে হবে প্রতিপক্ষের ম্যাচের দিকে। এমন সমীকরণের মধ্যেও ষড়যন্ত্র খুঁজে পাচ্ছে পেরুর এই পত্রিকাটি।

ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো এই ম্যাচের আগে অবস্থান করেছেন বুয়েন্স আয়ার্সে। লা বোমবোনরায় ম্যাচ চলাকালীন ২০৩০ বিশ্বকাপের পরিকল্পনা নিয়ে আর্জেন্টিনা, প্যারাগুয়ে ও উরুগুয়ের সঙ্গে বৈঠক করেছেন তিনি। তবুও টোডো স্পোর্ট তাদের দাবি থেকে সরেনি। ম্যাচটি যে পাতানো ছিল না তা ফলাফল দেখলেই টের পাওয়া যায়। তাই পেরুর এই পত্রিকার অভিযোগও গুরুত্ব পাচ্ছে না।

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের এই ম্যাচের নিষ্পত্তি হয়েছে গোল শূন্য ড্র-তে। আক্রমণের পর আক্রমণে পেরুর রক্ষণভাগকে ব্যস্ত রেখেছেন মেসি-আগুয়েরোরা। তবুও কেউ লক্ষ্যভেদ করতে পারেননি। এবারই প্রথম নয়। ১৯৭৮ বিশ্বকাপের ফাইনালে পেরুকে ৬-০ গোলে হারানোর পর আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ম্যাচ পাতানোর অভিযোগ উঠেছিল।

মন্তব্য

আপনার ইমেইল গোপন থাকবে - আপনার নাম এবং ইমেইল দিয়ে মন্তব্য করুন, মন্তব্যের জন্য ওয়েবসাইট আবশ্যক নয়

*

Open

Close