Home » অর্থনীতি » মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীরা মোবাইল ফোন কেনার জন্য সরকারী বরাদ্দ পাচ্ছেন অর্ধ লক্ষ টাকা!

মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীরা মোবাইল ফোন কেনার জন্য সরকারী বরাদ্দ পাচ্ছেন অর্ধ লক্ষ টাকা!

জনপ্রশাসন মন্ত্রনালয়ের প্রস্তুত করা খসড়ায় নীতিমালায় রয়েছে, মোবাইল ফোন কেনার জন্য মন্ত্রী প্রতিমন্ত্রী, উপমন্ত্রী সচিবদের জন্য বরাদ্দ থাকছে ৫০ হাজার টাকা। এসব মোবাইল ফোনে টেলিটকের ইন্টারনেট ব্যবহার বাধ্যতামুলক করার প্রস্তাব দিয়েছে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ।
সচিব সভায় উত্থাপনের জন্য চূড়ান্ত করা হয়েছে ‘সরকারি টেলিফোন ও ইন্টারনেট নীতিমালা-২০১৭‌‌। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ড. মো. মোজাম্মেল হক খান রবিবার (২২ অক্টোবর) সন্ধ্যায় এ তথ্য জানান।
নীতিমালায় বলা হয়েছে— মোবাইল সেট কেনার জন্য মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী, উপমন্ত্রী, মন্ত্রিপরিষদ সচিব, মুখ্য সচিব, সিনিয়র সচিব, সচিব ও ভারপ্রাপ্ত সচিব সরকারি ব্যয়ে একবার অনধিক ৫০ হাজার টাকা পাবেন। সরকারি ব্যয়ে কেনা মোবাইল ফোনে যে কোনও প্রতিষ্ঠানের ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারবেন মন্ত্রী-সচিবরা। তবে অগ্রাধিকার দিতে হবে বিটিসিএলের ইন্টারনেট সংযোগকে। মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী ও উপমন্ত্রীদের মোবাইল ফোন বিল (ইন্টারনেটসহ) পরিশোধ করবে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়।
মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, প্রথমবারের মতো সরকারিভাবে মোবাইল সেট কেনার সুযোগ পাচ্ছেন মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী, উপমন্ত্রী ও সচিবরা। এর আগেও সরকারি কর্মকর্তাদের ব্যবহার করা মোবাইল ফোনের ভাতা দেওয়া হতো। তবে নতুন নীতিমালায় বাড়ানো হয়েছে ভাতা।
নতুন নীতিমালায় প্রশাসনের সর্বোচ্চ কর্মকর্তা থেকে থানা নির্বাহী কর্মকর্তারা সরকারি খরচে মোবাইল ফোন ও ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারবেন। যুগ্ম-সচিব থেকে উর্ধ্বতন পর্যায়ের কর্মকর্তা ইন্টারনেটসহ মোবাইল ফোনের জন্য আড়াই হাজার টাকা করে ভাতা পাবেন। এক হাজার টাকা করে পাবেন উপ-সচিবের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

মন্তব্য

আপনার ইমেইল গোপন থাকবে - আপনার নাম এবং ইমেইল দিয়ে মন্তব্য করুন, মন্তব্যের জন্য ওয়েবসাইট আবশ্যক নয়

*

Open

Close