ব্রেকিং:
Home » অন্যান্য » মসজিদ থেকে ঘুষ নিলেন আওয়ামিলীগ নেতা !

মসজিদ থেকে ঘুষ নিলেন আওয়ামিলীগ নেতা !

সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার জালালাবাদ দক্ষিণপাড়া জামে মসজিদে সংসদ সদস্যের বরাদ্দকৃত সোলার প্যানেল স্থাপনের জন্য আড়াই হাজার টাকা ঘুষ গ্রহণের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে। জালালাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোসলেম আহম্মেদ গত ২৮ সেপ্টেম্বর এ ঘুষ গ্রহণ করেন বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছে।

জালালাবাদ দক্ষিণপাড়া জামে মসজিদ পরিচালনা কমিটির সভাপতি কলারোয়া আলিয়া মাদরসার গণিতের শিক্ষক আহছানুর রহমান জানান, সাংসদ অ্যাডভোকেট মুস্তফা লুৎফুল্লাহ তাদের মসজিদে একটি সোলার প্যানেল সংযোগের ব্যবস্থা করেন। সে অনুযায়ী গত ২৮ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টার দিকে সংশ্লিষ্ট কোম্পানির পক্ষ থেকে ওই প্যানেল লাগিয়ে দেয়া হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- জালালবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোসলেম আহম্মেদ। তিনি এ সোলার প্যানেল লাগানোর জন্য আড়াই হাজার টাকা দাবি করেন। বিষয়টি তিনি মসজিদ কমিটির অপর সদস্য মহিদুর রহমানও তাকে অবহিত করেন।

একপর্যায়ে তিনি কলারোয়া থেকে মসজিদে ফিরে এসে জরুরি সভা ডাকেন। সভায় সহ-সভাপতি অজিয়ার রহমান, সদস্য আব্দুল গফফার, ইমাম মেহেদী হাসানসহ কয়েকজন উপস্থিত ছিলেন।

সেখানে ওই আড়াই হাজার টাকা মোসলেম আহম্মেদকে দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়। তাৎক্ষণিকভাবে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৭টার দিকে মোবাইল করে জালালাবাদ বাজারে জাহাঙ্গীরের মুদির দোকানে বসে থাকা মোসলেম আহম্মেদের কাছে ওই টাকা তুলে দেন মহিদুর রহমান। পরবর্তীতে তারা জানতে পারেন যে ওই টাকা নিয়মবহির্ভূতভাবে নিয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতা।

আহছানুর রহমানের অভিযোগ সম্পর্কে নিশ্চিত করেছেন কমিটির কয়েকজন সদস্যসহ এলাকার মুসল্লিরা। এ নিয়ে মুখ খুললে তাদেরকে নাশকতার মামলায় চালান দেয়া হবে বলে হুমকি দেয়া হয়েছে।

জানতে চাইলে জালালাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোসলেম আহম্মেদ জানান, এলাকার যারা জামায়াত শিবির করে তারা তার বিরুদ্ধে নানা অপপ্রচার চালাচ্ছেন। ইউনিয়নে আরও ২৮টি সোলার প্যানেল সংযোগ দেয়া হয়েছে। সেখান থেকে কোনো টাকা নেয়া হয়েছে কিনা জানলে মসজিদ কমিটি থেকে টাকা নেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে। কোনো ব্যক্তিকে নাশকতার মামলায় চালান দেয়ার হুমকি দেয়ার কথা অস্বীকার করেন তিনি।

jagonews24

মন্তব্য

আপনার ইমেইল গোপন থাকবে - আপনার নাম এবং ইমেইল দিয়ে মন্তব্য করুন, মন্তব্যের জন্য ওয়েবসাইট আবশ্যক নয়

*

Open

Close