ব্রেকিং:
Home » খেলা » যেভাবে বাংলাদেশের প্রথম টি-টুয়েন্টি ম্যাচ একাই জিতিয়েছিলেন মাশরাফি

যেভাবে বাংলাদেশের প্রথম টি-টুয়েন্টি ম্যাচ একাই জিতিয়েছিলেন মাশরাফি

কলম্বোর রানাসিংহে প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে জীবনে শেষ টি-টুয়েন্টি ম্যাচ গত বছর খেলেছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সর্বকালের সেরা অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। বাংলাদেশ ক্রিকেট অাকাশের উজ্জল নক্ষত্র মাশরাফি বিন মর্তুজার টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচটি খেলেছিলেন স্বাগতিক শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে।

টি-টোয়েন্টিতে মাশরাফির অভিষেকটি ছিল বাংলাদেশেরও অভিষেক ম্যাচ। সেই ম্যাচে খুলনার আবু নাসের স্টেডিয়ামে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ব্যাটে-বলে অসাধারণ নৈপুন্য দেখিয়ে বাংলাদেশকে জয় উপহার দিয়েছিলেন মাশরাফি।

টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে প্রথম ওভারের তৃতীয় বলে অাউট হয় ওপেনার নাজমুল সাদাত। পরে ক্যাপ্টন শাহরিয়ার নাফিজ এবং অাফতাব অাহমেদের ৫৩ রানে জুটিতে ঘুরে দাড়ায় বাংলাদেশ। নাফিজ ২৫ রানে অাউট হলেও সাকিবকে নিয়ে বড় সংগ্রহ দিকে যায় বাংলাদেশ। অাফতাব ২৮ রানে অাউট হলে ৯৭ রানে ৬ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। সাকিব যখন অাউট হয় তখন বাংলাদেশের রান ছিলো ১৪.৪ ওভারে ৭ উইকেটে ১১৪ রান। সাকিব এ দিন করেছিলেন ২৬ রান।

তবে এদিন শেষটা করেন মাশরাফি। বিপদে পড়া বাংলাদেশকে মোহাম্মাদ রফিককে সাথে নিয়ে বড় স্কোর করেন মাশরাফি। সে দিন মাশরাফির হার না মানা ২৬ বলে ২ চার ২ ছক্কা হাকিয়ে ৩৬ রান করেন। অার রফিক করেন ১৩ রান শেষ পয়ন্ত ১ বল বাকি থাকতে ১৬৬ রানে অলঅাউট হয় বাংলাদেশ।

জিম্বাবুয়েকে ১৬৭ রানের টার্গেট দেয় বাংলাদেশ। এ দিন বল হাতেও মাশরাফি ছিলেন দুর্দান্ত নিজের দ্বিতীয় এবং ইনিংসের তৃতীয় ওভারে জিম্বাবুয়ের তখন কার সেরা ব্যাটসম্যান টেইলর কে বোল্ড করেন তিনি। এদিন বল হাতে ২৯ রানে নেন ১ উইকেট। ফলে ম্যাচ সেরা পুরুস্কার জিতেন মাশরাফি। অবশ্য অাব্দুর রাজ্জাকের ৩ টি, শাহদত হোসেনের ২ উইকেটে ১২৩ রানে অলঅাউট হয় জিম্বাবুয়ে।

মন্তব্য

আপনার ইমেইল গোপন থাকবে - আপনার নাম এবং ইমেইল দিয়ে মন্তব্য করুন, মন্তব্যের জন্য ওয়েবসাইট আবশ্যক নয়

*

Open

Close