Home » রাজনীতি » শিউলীকে দেখেই চমকে উঠলেন এরশাদ !

শিউলীকে দেখেই চমকে উঠলেন এরশাদ !

শিউলীকে দেখেই চমকে উঠলেন এরশাদ। আগের চেয়ে অনেক বদলে গেছেন তিনি। মাথায় হিজাব। পরনে লালচে শাড়ি। এরশাদকে দেখেই সালাম দিলেন শিউলী। বললেন- ‘স্যার কেমন আছেন।’ চোখ তুলে এরশাদ শিউলীর দিকে তাকালেন।
বললেন- ‘শিউলী তোমাকে চেনাই যাচ্ছে না। শুনলাম হজ করেছো। মাঠেও কাজ করছো শুনলাম। সামনে নির্বাচন আছে। কাজ করে যাও।’ এ কথা বলে এরশাদ সার্কিট হাউস থেকে নেমে আসেন। বৃহস্পতিবার সিলেটে মাজার জিয়ারতে এসেছিলেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান আলহাজ হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।

মাজার জিয়ারতের মাধ্যমে তিনি নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করলেন। মাজার জিয়ারতের পর এরশাদ সিলেট সার্কিট হাউসে বিশ্রামে যান। সেখানে তিনি দুপুরের খাবারও খান। এই সময়ের মধ্যে সিলেটের নেতারা গিয়ে তার সঙ্গে দেখা করেন। দেখা করতে গিয়েছিলেন জাতীয় মহিলা পার্টির কেন্দ্রীয় যুগ্ম সম্পাদক ও সিলেট মহানগরের সাধারণ সম্পাদক শিউলী আক্তার। এরশাদ বের হওয়ার সময় তার সঙ্গে দেখা হয়। এমন সময় শিউলীকে দেখে এরশাদ এ মন্তব্য করেন। শিউলী সিলেট-২ আসনের সম্ভাব্য সংসদ সদস্য প্রার্থী। ইতিমধ্যে তিনি নির্বাচনী প্রচারণায় নেমেছেন। তবে এ আসনে জাতীয় পার্টির বর্তমান এমপি ইয়াহহিয়া চৌধুরী এহিয়া বেশ সুসংহত অবস্থানে রয়েছেন। শিউলী মাঠে নামায় সিলেট-২ (ওসমানীনগর-বিশ্বনাথ ও বালাগঞ্জ) আসনে জাতীয় পার্টির মধ্যে বিভক্তি দেখা দিয়েছে। এর মধ্যে একাংশ এহিয়ার পক্ষে ও অপর অংশ শিউলীর পক্ষে অবস্থান নিয়েছেন।


বিগত দিনে সিলেটে শিউলী নানাভাবে আলোচিত-সমালোচিত হয়েছেন। খোদ জাতীয় পার্টির রাজনীতিতে তাকে এখনো আড়চোখে দেখা হয়। এরপরও দলীয় প্রধানের সু-নজরে থাকায় আগের চেয়ে অনেক শক্তিশালী সিলেটের শিউলী। এক সময় তিনি কাঁপিয়েছেন সিলেটে শো-বিজ অঙ্গন। নাটক, মিউজিক ভিডিওতে ব্যস্ত থেকেছেন। এ কারণে তিনি সিলেটের যুবকদের কাছে ‘হার্টথ্রুব’ ছিলেন। এরপর ধীরে ধীরে তিনি সিলেটের জাতীয় পার্টির রাজনীতিতে যুক্ত হন। অনেক পথ পাড়ি দেয়ার পর তিনি জাতীয় মহিলা পার্টির কেন্দ্রীয় নেত্রী হন। বর্তমানে মহানগরের সভানেত্রীও। এরশাদ সিলেটে এলেই শিউলী সরব হয়ে উঠেন। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি। মাত্র দুই দিনের প্রস্তুতিতে বৃহস্পতিবার সিলেটে আসেন এরশাদ।

শিউলী ওই সময়ের মধ্যে বুধবার বিকেলে এরশাদকে স্বাগত জানিয়ে সিলেটে নারীদের নিয়ে মিছিল করেছেন। আর এই মিছিলের ছবি তার ফেসবুকে আপলোডও করেছেন। আর এরশাদ সিলেটে আসার পরপরই ছুটে যান সিলেট সার্কিট হাউসে। সেখানে তিনি এরশাদের সঙ্গে দেখা করেন। এ সময় সিলেট জাতীয় পার্টির সিনিয়র নেতারাও সেখানে ছিলেন। গতকাল বিকেলে শিউলী মানবজমিনকে জানিয়েছেন, ‘স্যার সিলেটে আসার পর আমি সার্কিট হাউসে চলে যাই। সেখানে স্যার আমাকে দেখে চমকে উঠেন। এরপর আমি হজ করেছি যে এ বিষয়টি শুনেছেন বলে জানান।’ তিনি বলেন- ‘আমি জাতীয় পার্টির কর্মী। দলের চেয়ারম্যান হচ্ছেন নেতাকর্মীদের প্রাণ। স্যারকে দেখতে গতকাল অনেক নেতাকর্মীকে সিলেটে এসেছিলেন।


কিন্তু স্যারের সফর সংক্ষিপ্ত থাকায় দেখা হয়নি।’ তিনি বলেন-‘ গেল বছর তিনি ওমরা হজ করেছেন। এরপর থেকে হিজাব পরেই রাজনীতিতে অংশ নেন। রাজনীতির পাশাপাশি তিনি সিলেটে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানও পরিচালনা করেন বলে জানান।’ সিলেটের জাতীয় পার্টির নেতারা জানিয়েছেন, এরশাদ সিলেটে এবার সংক্ষিপ্ত সফরে এসেছিলেন। এ কারণে তাকে নিয়ে সমাবেশের আয়োজন করা সম্ভব হয়নি। সার্কিট হাউসে এরশাদ বিশ্রামের সময় দলীয় নেতাকর্মীদের নির্বাচনের প্রস্তুতি নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। একই সঙ্গে তিনি সিলেটে একটি সমাবেশ আয়োজন করারও তাগিদ দেন। সমাবেশের আয়োজন করলে এরশাদ সিলেটে আসবেন বলে নেতাকর্মীদের জানিয়ে গেছেন।
মানব জমিন

মন্তব্য

আপনার ইমেইল গোপন থাকবে - আপনার নাম এবং ইমেইল দিয়ে মন্তব্য করুন, মন্তব্যের জন্য ওয়েবসাইট আবশ্যক নয়

*

Open

Close