ব্রেকিং:
Home » জাতীয় » সুইপার বাবা অবশেষে জানতে পারলেন মেয়েটি তাকে খুবই ভালোবাসে

সুইপার বাবা অবশেষে জানতে পারলেন মেয়েটি তাকে খুবই ভালোবাসে

নিউজ ডেস্ক: সেদিন সুইপার বাবা অবশেষে জানতে পারলেন মেয়েটি তাকে খুবই ভালোবাসে। মনু লাল। এলাকার লোকজন সুইপার হিসেবে চেনে তাকে। তিনি নিজেকে ভাগ্যবান এবং সুখী মানুষ হিসেবে মনে করেন। তবে কিছুদিন আগেও তিনি নিজেকে একজন দুঃখী মানুষের কাতারে রেখেছিলেন।

একটি ঘটনাই তার ভেতরের জানাটিকে পরিবর্তন করে দেয়। তার সঙ্গে আলাপচারিতার এক পর্যায়ে তিনি বলতে শুরু করেন, আমি জানতে পারি আমার মেয়ের সঙ্গে একটি ছেলের সম্পর্ক চলছে। তা আজকের নয়, পাঁচ বছরের। সে আমাকে এ বিষয়ে কখনই কিছু জানায়নি; কারণ সে আমাকে ভয় পেত।

তিনি আরও বলেন, আমার ধারণা আমাকে আমার সন্তানেরা ঘৃণা করে। কারণ আমার কাজটি সম্মানজনক ছিল না। আমি একদিন মেয়েকে বললাম ছেলেটি ও তার পরিবারকে আমাদের বাসায় নিয়ে আসতে। ‘এই উপলক্ষে আমি আমার বাড়িটি সাঁজিয়েছিলাম। চেষ্টা করেছিলাম তাদের ভালো খাবার দিতে।’

কিছুটা থেমে তিনি আবার বলতে শুরু করেন, সেইদিন আমি আমার মেয়ের মুখে অনেক খুশি দেখেছিলাম। যখন পাত্রপক্ষ কথাবার্তা শুরু করল তখন তারা যৌতুকের বিষয়টি বলল। একটি বাড়ি গোছাতে যা প্রয়োজন তারা তা যৌতুক হিসেবে চেয়েছিল। আমি শুনছিলাম আর হিসেব করছিলাম।

তবে শেষ পর্যায়ে তারা একটি দাবি জানাল যে, আমি কোনোদিন তাদের পরিবারের অন্য সদস্যদের নিজের পরিচয় দিতে পারবো না এবং আমি কোনোদিন মেয়ের শশুড় বাড়ি যেতে পারব না। একথা শুনে আমার মেয়ে রেগে গেল, আর ছেলেটির গালে থাপ্পর মারল।

তিনি কাঁদো কাঁদো গলায় বলেন, আমার মেয়ে তখন বলেছিল, আমার বাবা যা করতে পারে অন্য কারও বাবা তা করতে পারে না। আমার বাবা যা করে আমি তাতে গর্ববোধ করি। তোমরা যদি এই মুহূর্তে বেড়িয়ে না যাও তাহলে আমি তোমাদের সবাইকে মারব।

‘এরপর সে তার বিয়েটি ভেঙে দিল। পাঁচ বছরের সম্পর্ক এক সেকেন্ডে শেষ করে দিল সে। সেইদিন থেকে আমি জানি, কী ভাগ্যবান এবং সুখি আমরা।’, যোগ করেন মনু লাল।-প্রিয়

 

মন্তব্য

আপনার ইমেইল গোপন থাকবে - আপনার নাম এবং ইমেইল দিয়ে মন্তব্য করুন, মন্তব্যের জন্য ওয়েবসাইট আবশ্যক নয়

*

Open

Close