‘কেউ যেন নির্যাতনের শিকার না হয়’

0

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পুলিশ বাহিনীকে সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, ‘নিরীহ কোন মানুষকে যেন হয়রানি না করা হয়। কেউ যেন নির্যাতনের শিকার না হয়’। আজ সোমবার সকালে জাতীয় পুলিশ সপ্তাহ-২০১৯ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে দেওয়া বক্তব্যে একথা বলেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, `জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস দমনে পুলিশ যেমন উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রেখেছে, তেমনি মাদক নির্মূল ও নিরাপদ সড়ক গড়ে তুলতেও তাদের অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে। আমরা পুলিশকে বহুমুখী করে গড়ে তুলছি, যেন মানুষ সেবা পায়।পুলিশের প্রশিক্ষণের ওপরও তার সরকার সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেয় বলে উল্লেখ করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

এর আগে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পুলিশ সপ্তাহের প্রথম দিন আজ সোমবার সকালে রাজারবাগ পুলিশ লাইনস্ মাঠে বর্ণাঢ্য প্যারেড উপভোগ করেন। সারাদেশের বিভিন্ন পুলিশ ইউনিটের সদস্যদের সমন্বয়ে গঠিত ১০টি কন্টিনজেন্ট এবং পতাকাবাহীদলের নয়নাভিরাম কুচকাওয়াজ পরিদর্শন ও অভিবাদন গ্রহণ করেন তিনি।

পুলিশ সপ্তাহ উপলক্ষে পুলিশ বাহিনীর সদস্যগণের অসীম সাহসিকতা ও বীরত্বপূর্ণ কাজের স্বীকৃতি স্বরূপ ৪০ জন পুলিশ সদস্যকে ‘বাংলাদেশ পুলিশ পদক (বিপিএম)’, ৬২ জনকে ‘রাষ্ট্রপতির পুলিশ পদক (পিপিএম)’ এবং গুরুত্বপূর্ণ মামলার রহস্য উদ্ঘাটন,

অপরাধ নিয়ন্ত্রণ, দক্ষতা, কর্তব্যনিষ্ঠা, সততা ও শৃঙ্খলামূলক আচরণের মাধ্যমে প্রশংসনীয় অবদানের জন্য ১০৪ জন পুলিশ সদস্যকে ‘বাংলাদেশ পুলিশ পদক (বিপিএম)-সেবা’ এবং ১৪৩ জনকে ‘রাষ্ট্রপতির পুলিশ পদক (পিপিএম)-সেবা’ প্রদান করেন প্রধানমন্ত্রী।বাংলা ইনসাইডার

Leave A Reply

Your email address will not be published.