কারাগার থেকে ছেলে উদ্দেশ্যে পাঠানো সেই চিঠি পুনরায় পাট করলেন এরদোগান

0

১৯৯৯ সালে কারাগারে বন্দী থাকাকালীন সময়ে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়িব এরদোগান স্বীয় পুত্র বেলালের নিকট একটি চিঠি পাঠান।বক্তৃতা (খুৎবা) ও ইমামতীর উপর বেলালের মাধ্যমিক শিক্ষাসমাপনী অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়া সম্ভব না হওয়ায় তুর্কি প্রেসিডেন্ট স্বীয় পুত্র ও তার সহপাঠীদেরকে উদ্দেশ্য করে সান্ত্বনামূলক এ চিঠিটি লিখেছিলেন।

গতকাল শনিবার ১৩ এপ্রিল ইস্তাম্বুলে অবস্থিত বেলালের সেই মাদরাসার শিক্ষাসমাপনকারী শিক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠানে যোগদান করে প্রেসিডেন্ট এরদোগান পুরোনো সেই চিঠিটি উপস্থিত সবাইকে আবার পড়ে শোনান।এসময় মুসলিম বিশ্বের প্রভাবশালী এ নেতা এরকম (খুৎবা,

ইমামতী কিংবা এজাতীয় প্রয়োজনীয়) শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান তুরস্কে আরো বেশি বেশি প্রতিষ্ঠা করার উপর গুরুত্বারোপ করেন-মূলত এসব মাদরাসা ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান দিনদিন বৃদ্ধি পাওয়ায় যারা সমালোচনা করে যাচ্ছে, এ কথা বলে এরদোগান তাদের জওয়াব দিয়েছেন।

তিনি তার বক্তৃতায় আরো বলেন, আমরা আমাদের মূল্যবোধ, ইতিহাস এবং সংস্কৃতির সাথে সঙ্গতিপূর্ণ এমন শিক্ষা ব্যবস্থার নির্মান ছাড়া কোন লক্ষ্য অর্জন করতে সক্ষম হবোনা।এরপর তিনি কবিতাটি পাঠ করে শোনান, যার বাংলা অনুবাদ এরকম-

আমার প্রিয় তরুণ দল!আমি তোমাদের আজকের দিনের গুরুত্ব অনুধাবন করছি। আমার অন্তরের অন্তস্থল থেকে তোমাদের অভিবাদন জানাই। আর এ কথা জেন যে, বিশেষ করে তোমাদের আজকের সুন্দর এই দিনটিতে আমি তোমাদের পাশেই আছি।

“আমি তোমাদের পাশেই আছি” এ কথা দ্বারা প্রেসিডেন্ট এরদোগান এদিকে ইশারা করেছেন যে, আমিও তোমাদের এই মাদরাসার একজন স্নাতক শিক্ষার্থী। আমি সগৌরবে এই প্রতিষ্ঠানের ছাত্র হিসেবে নিজের পরিচয় দেই। আজকের পরে অচিরেই তোমাদের সঙ্গে আমার সাক্ষাৎ হবে, যেখানে যে অবস্থায়ই থাকিনা কেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.