মেয়ের ফোন নম্বর চাওয়ায় যুবকের কাছে যা চাইলেন মীরাক্কেলের মীর

0

মেয়েকে নিয়ে রেস্তোরাঁয় কফি পান করছেন; এমন ছবি ফেসবুকে পোস্ট করেছিলেন কলকাতার জনপ্রিয় রেডিওজকি ও ‘মীরাক্কেল’খ্যাত তারকা মীর। আর সেই ছবিতে অভব্যের মতো মীরের মেয়ের ফোন নম্বর চেয়ে কমেন্ট করেন এক ভারতীয় নেটিজেন। মেয়ের নম্বর চাইলে সাধারণত দেখা যায়, বাবারা মেজাজ হারিয়ে ফেলেন।

কিন্তু মীর মীরাক্কেল সিরিজের মেজাজেই পাল্টা জবাব দিলেন। রিপ্লাইতে মজা করে পাল্টা কমেন্ট করলেন যা এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক আলোচিত। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস জানিয়েছে, গত ১৩ জানুয়ারি মেয়ের সঙ্গে কফি খাওয়ার একটি ছবি পোস্ট করেন মীর আফসার আলি। আর মীরের ছবি মানেই ভাইরাল কিছু।

একাধিক কমেন্টে ভেসে যায় ছবিটি। অনেকেই মীরের মেয়ের মঙ্গল কামনা করেন। কিন্তু এরইমাঝে সায়ক গাঙ্গুলী নামের এক যুবক কমেন্ট করেন, ‘স্যার আপনার মেয়ের নম্বর টা দেবেন? একটু কথা বলব….’এমন অভব্য আচরণে অন্য কেউ ক্ষেপে গেলেও মীর মোটেই ক্ষোভ প্রকাশ করেননি। উল্টো মজা করে বিশাল একটি কমেন্ট করেন।

মেয়ের নম্বর পেতে ওই ছেলেকে কি কি যোগ্যতা অর্জন করতে হবে তা বিস্তারিত লেখেন তিনি। মীর লেখেন- ‘তার আগে দয়া করে নিম্মোক্ত বিষয়গুলো প্রদান করুন – জন্মসনদ, আধার কার্ড, প্যান কার্ড, ভোটার আইডি, রেশন কার্ড, এ-ফোর সাইজ কাগজে বাঁ হাতের বুড়ো আঙুলের ছাপ,

এ-থ্রি কাগজে ডান হাতের বুড়ো আঙুলের ছাপ, সম্প্রতি জমা দেয়া বিদ্যুৎ বিলের সত্যায়িত কপি, শেষ ৩ বছরের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট স্টেটমেন্ট, পার্সপোর্টের ফটো কপি, শেষ ৩ বছরের আইডি রিটার্ন। ব্যস, এই কয়টা ডকুমেন্ট পেলেই মেয়ের নম্বর দিয়ে দেব।’ এ বিষয়ে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলাকে মীর বলেন, ‘এটা তো মজা করেই লিখেছি।

রাগ, ক্ষোভ দেখিয়ে কি লাভ! এমন কমেন্টে আমার মেয়ের তো কোনো ক্ষতি হয়নি। সোশ্যাল মিডিয়ায় এমনটা হরহামেশাই হয়। তাই বলে মেজাজ হারিয়ে উত্তর দেয়া ঠিক নয়। তাই ঠান্ডা মস্তিষ্কে কমেন্ট করেছি।’ এরপর তিনি বলেন, ‘মেয়ে বড় হয়েছে। এরপর থেকে ছবি আপলোড করার সময় বিষয়টা মাথায় রাখতে হবে। আমি একজন বাবা। সব সময় সর্তক থাকতে হবে।’jugantor

Leave A Reply

Your email address will not be published.