করোনায় ৬ জনের মৃত্যুর পর ব্যাপক আতঙ্কে ইরান

0

করোনা ভাইরাসে ছয়জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে ইরান কতৃপক্ষ। করোনা ভাইরাসে বেশ কয়েকজন আক্রান্ত হওয়ার পর দেশটির বিভিন্ন প্রদেশ করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে স্কুল, বিশ্ববিদ্যালয় ও সাংস্কৃতিক কেন্দ্রগুলি বন্ধের নির্দেশ দেয়। মারকাজী প্রদেশের গভর্নর আলী আগজাদেহ বলেন, মারকাজী প্রদেশের রাজধানী আরাকে মারা যাওয়া রোগীর শরীরে করোনা ভাইরাস পাওয়া গেছে।

বার্তা সংস্থা আইআরএনএকে তিনি বলেন, ঐ ব্যক্তি হার্টের সমস্যায় ভুগছিল। এছাড়া করোনা ভাইরাসে ২৮ জন আক্রান্ত বলে জানা গেছে। তবে মারা যাওয়া সবাই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন কি না তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। যারা মারা গেছেন তাদের প্রত্যেকেই ইরানি নাগরিক বলে মনে করা হচ্ছে। চীনের বাইরে ইরানেই করোনায় সবচেয়ে বেশি মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। আনুষ্ঠানিকভাবে কোভিড-১৯ নামে পরিচিত এ রোগে গত বুধবার ইরানে প্রথম সংক্রমণ দেখা যায়।

কর্তৃপক্ষ জানায়, রাজধানীর দক্ষিণে পবিত্র শিয়া নগরী কোমে দুই প্রবীণ ব্যক্তি এ রোগে মারা যায়। ইরানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন বরাতে জানা গেছে, ‘প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা’ হিসেবে কর্তৃপক্ষ রোববার থেকে সারাদেশে ১৪টি প্রদেশের স্কুল, বিশ্ববিদ্যালয় এবং অন্যান্য শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক কেন্দ্র বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়। প্রদেশগুলো হল- কোম, মারকাজি, গিলান, আর্দাবিল, কেরমানশাহ, কাজভিন, জাঞ্জান, মাজান্দারান, গোলেস্তান, হামদান, আলবার্জ, সেমানান, কুর্দিস্তান ও রাজধানী তেহরান।

সংক্রমণ বন্ধের লক্ষ্যে সরকার চিত্রশিল্প ও সিনেমা প্রদর্শনী এক সপ্তাহের জন্য বাতিল করেছে। কোম মেডিক্যাল সাইন্স ইউনিভার্সিটির প্রধান মোহাম্মদরেজা গাদির বলেন, আমাদের সাহায্য দরকার, আমি যদি একটি কথাও বলি তা হলো ‘কোমকে সাহায্য করুন’। ইরান যদিও এখনো নিশ্চিত হতে পারেনি কিভাবে দেশটিতে করোনা ভাইরাস ছড়াল। তবে এক কর্মকর্তা দাবি করেছেন, চীনের শ্রমিক-কর্মচারীর মাধ্যমেই তা ছড়িয়েছে।

ইরানের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা আইআরএনএ স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা মিনু মোহরাজের বরাতে জানিয়েছে, ‘দেশে করোনা ভাইরাসের মহামারী শুরু হয়েছে। চীনা নাগরিকদের সাথে কোম শহরের সরাসরি যোগাযোগ না থাকলেও ধারণা করা হচ্ছে কোনো চীনা নাগরিক এই শহরটি ভ্রমণ করার পরেই করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ে। এরই মধ্যে রাজধানী তেহরানের পাতাল রেল স্টেশনগুলোর খাবার দোকান পরবর্তী ঘোষণা না দেয়া পর্যন্ত বন্ধ থাকবে বলে জানানো হয়েছে। ইরান কতৃপক্ষ ১০ দিনের জন্য ফুটবল ম্যাচগুলো স্থগিত করেছে। এছাড়া গণপরিবহন ও মেট্টোরেল দৈনিক পরিস্কার করার নির্দেশ দিয়েছে।

আলজাজিরার তেহরান প্রতিনিধি জানান, তেহরানের নাগরিকদের মধ্যে করোনা ভাইরাস নিয়ে উদ্বেগ দেখা দিয়েছে। করোনা ভাইরাসে আসলে কতজন আক্রান্ত তা নিয়ে নাগরিকরা সন্দিহান। তারা সঠিক তথ্যটি জানতে চান। মূলত ইউক্রেনের বিমান ভূপাতিত করার পর তা অস্বীকার করায় দেশটির নাগরিকরা এখন সরকারের বক্তব্যে সন্দিহান। তিনি বলেন, ইরানের নাগরিকরা আতঙ্কে রয়েছেন। স্কুলগুলো বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। সেমিনার, কনসার্ট, সিনেমা প্রদর্শনী বন্ধসহ গণজমায়েত নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

এছাড়া সরকারি টেলিভিশনে কিভাবে মুখোশ পরা যায়, কিভাবে হাত ধুতে হবে তার দেখানো হচ্ছে। এদিকে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লুএইচও) ইরানে কোভিড-১৯ ছড়িয়ে পড়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। পাশাপাশি ইরান থেকে এই অঞ্চলের অন্যান্য জায়গায় ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা প্রকাশ করেছে। সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা ডাব্লুএএম জানায়, করোনভাইরাসে নতুন করে দু’জন আক্রান্ত হয়েছেন।

একজন ইরানি পর্যটক ও তার স্ত্রীর শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত করা হয়েছে। যার ফলে আরব আমিরাতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১৩ জনে পৌঁছেছে। লেবানন শুক্রবার প্রথম করোনভাইরাসে আক্রান্তের সত্যতা নিশ্চিত করেছে। ৪৫ বছর বয়সী এক নারী ইরানের কোম থেকে ফিরে আসার পর তার দেহে এ ভাইরাসের সন্ধান পাওয়া যায়। ইরাক বৃহস্পতিবার থেকে ইরান সীমান্ত বন্ধ করে দেয়ার ঘোষণা দেয়। ইরাকি এয়ারওয়েজ ইরানের সব ফ্লাইট বাতিল করেছে।

এছাড়া কুয়েত এয়ারওয়েজ ইরানে সব ফ্লাইট বন্ধ করেছে। শুক্রবার থেকে সৌদি আরব তার নাগরিক ও প্রবাসীদের ইরান সফর স্থগিত করার ঘোষণা দেয়। অন্যদিকে কুয়েত এয়ারওয়েজ শনিবার উত্তর-পূর্ব ইরানের মাশহাদ শহর থেকে ৭০০ কুয়েতি নাগরিককে নিজ দেশে সরিয়ে নেওয়ার জন্য বিশেষ বিমানের ব্যবস্থা করে। ডিসেম্বরে ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাসে এখন পর্যন্ত ২৪০০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া বিশ্বব্যাপী ৭৭ হাজারের বেশি মানুষ প্রাণঘাতী এ রোগের শিকার। আলজাজিরা।

Leave A Reply

Your email address will not be published.