নেদারল্যান্ডে করোনা মোকাবেলায় বিরোধীদলীয় নেতাকে স্বাস্থ্যমন্ত্রী নিয়োগ

0

নভেল করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে সহায়তা করার জন্য একজন বিরোধী দলীয় সংসদ সদস্যকে দেশের অস্থায়ী স্বাস্থ্যমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দিয়েছেন নেদারল্যান্ডসের প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুট। করোনার সঙ্কট

মোকাবেলায় দলীয় রাজনীতির ঊর্ধ্বে উঠে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি।বিরোধী দল লেবার পার্টির সাবেক স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক মার্টিন ভন রাইনকে তিন মাসের জন্য স্বাস্থ্যসেবা মন্ত্রী নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী টুইটারে লিখেছেন, স্বাস্থ্যসেবা নিয়ে তার (মার্টিন ভন) বহু বছরের অভিজ্ঞতা রয়েছে এবং এই মন্ত্রণালয়কেও তিনি ভালোভাবে জানেন। গত বুধবার সংসদীয় বিতর্ক চলাকালীন সংসদ সদস্যদের প্রশ্নের জবাব দেয়ার সময় অচেতন হয়ে মেঝেতে পড়ে যান স্বাস্থ্যমন্ত্রী ব্রুনো ব্রানস (৫৬)।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব সামলাতে কয়েক সপ্তাহ ধরে একটানা প্রচণ্ড কাজের চাপে ক্লান্ত অবসন্ন হয়ে পড়েছিলেন। সংসদে অজ্ঞান হয়ে পড়ে যাওয়ার পর তিনি পদত্যাগ করেন। করোনা সঙ্কট মোকাবেলায় গঠিত সরকারের যৌথ টিমের নেতৃত্বে ছিলেন তিনি।

নতুন মন্ত্রী এরই মধ্যে ব্রুনোর কাছ থেকে দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন। এই সিদ্ধান্তটি ডাচ রাজনৈতিক মহলে ব্যাপক প্রশংসা কুড়িয়েছে। লেবার পার্টির নেতা লোদেউইজক অ্যাশচর প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করে টুইটারে লিখেছেন,

এই কঠিন সময়ে প্রত্যেকেকে এগিয়ে আসতে হবে। জাতীয়স্বার্থে কোনো দল বিবেচনায় না এনে একত্রে কাজ করা দরকার। ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনালের ইউরোপীয় ইউনিয়ন পরিচালক মিশিয়েল ভন হালটেনও এ সিদ্ধান্তের প্রশংসা করেছেন। তিনি রাইনকে এই কাজের যোগ্য বলেও মনে করেন।

গত শুক্রবার নেদারল্যান্ডসে নতুন করে ৫৩৪ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানিয়েছে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। এ নিয়ে দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ৩ হাজার, প্রাণ হারিয়েছেন ৩০ জন। সূত্র: ইউরোনিউজ

Leave A Reply

Your email address will not be published.