ব্রেকিং:
Home » খেলা » টাইগার দল থেকে বাদ পড়ার মূল কারণ নিজেই বলেলন আল আমিন

টাইগার দল থেকে বাদ পড়ার মূল কারণ নিজেই বলেলন আল আমিন

স্পোর্টস ডেস্ক: ২০১৩  সালে জাতীয় দলে অভিষেক হয় আল আমিন হোসেনের। পেসারদের দুঃসময়ে হয়ে ওঠেন দলের বোলিংয়ে আশার আলো। ঘরোয়া ক্রিকেটে দারুণ পারফরম্যান্স করা ঝিনাইদহের এই ডানহাতি পেসার জাতীয় দলেও প্রতিভার স্বাক্ষর রাখেন।

বিশেষ করে টি-টোয়েন্টি ফরমেটে ২৫ ম্যাচের ২৩ ইনিংসে বল হাতে আল আমিনের রয়েছে ১৫.১৭ গড়ে ৩৯ উইকেট। বাংলাদেশের হয়ে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে সেরা পাঁচ বোলারের মধ্যে আল আমিনের অবস্থান তৃতীয়। ওয়ানডে পরিসংখ্যানও ফেলনা নয়, ১৪ ম্যাচে ২৪.৯০ গড়ে নিয়েছেন ২১ উইকেট।

সেই সঙ্গে ৬ টেস্টে নিয়েছেন ৬ উইকেটও। কিন্তু ২০১৫ সালে

তার স্বপ্নের আকাশে জমতে শুরু করে কালো মেঘ। অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডে বিশ্বকাপ খেলার সুযোগ হারান দলের শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে। এরপর ফের ঘরোয়া ক্রিকেটে নিজেকে প্রমাণ করে ভারতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও খেলেন।

তবে দেশে ফিরে জায়গা হয়নি আফগানিস্তান ও ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজে। নিউজিল্যান্ড সিরিজেও বিবেচনাতে আসেনি এই পেসার। কারণ ফিটনেস ও ফিল্ডিং দুর্বলতা। সেই সঙ্গে মাঠের বাইরে উচ্ছৃঙ্খল জীবনের কালো ছায়াও পড়ে তার ক্রিকেটের উপর।

সর্বশেষ আলোচনায় আসেন বিপিএলে বরিশাল বুলসের হয়ে খেলতে গিয়ে নারী কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে। তবে সব ভুলে আল আমিন এখন নতুন আশায় বুক  বেঁধেছেন। মাঠের ক্রিকেটের সঙ্গে ব্যক্তি জীবনেও আনতে চান বড় পরিবর্তন। এ নিয়ে খোলামেলা কথা বলেছেন।

টাইগার আল আমিন নিজেই জানালেন দল থেকে বাদ পড়ার মূল কারণ। তিনি বলেন, কোচ ও নির্বাচকদের কাছে শুনেছি ফিল্ডিং ও ফিটনেসে সমস্যা। তাই দল থেকে বাদ পড়েছি।

আল আমিন আরও বলেন, মানুষই ভুল করে। আবার শুধরে জীবন সুন্দর করতে পারে। আমার কাছে সময় আছে সব ভুল শুধরে সামনে এগিয়ে যাওয়ার। আমি চাই সবাই আমার পাশে থাকুন, দোয়া করুন যেন নিজেকে ফিরে পেতে পারি।

 

Facebook Comments
(Visited 1 times, 1 visits today)

মন্তব্য

আপনার ইমেইল গোপন থাকবে - আপনার নাম এবং ইমেইল দিয়ে মন্তব্য করুন, মন্তব্যের জন্য ওয়েবসাইট আবশ্যক নয়

*

Open

Close