বদরে আলম ও আকতার হোসাইনের ইন্তেকালে জামায়াতের শোক

0 3

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর সাবেক কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও বাইতুলমাল সেক্রেটারি বদরে আলম এবং ব্যবসায়ীদের অন্যতম জাতীয় সংগঠন আইবিডব্লিউএফ-এর ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের সহ-সভাপতি সাখাওয়াত হোসেনের বড় ভাই, সাবেক কাস্টমস কর্মকর্তা আকতার হোসাইনের ইন্তেকালে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের আমীর নুরুল ইসলাম বুলবুল এবং কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের সেক্রেটারি ড. শফিকুল ইসলাম মাসুদ।

এক যৌথ শোকবার্তায় নেতৃবৃন্দ মরহুমদ্বয়ের দেশে ইসলামী দ্বীন প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে অগ্রণী ভূমিকা পালন এবং তাদের সমাজ সচেতনতার কথা স্মরণ করে এ শোক প্রকাশ করেন।

শোকবার্তায় নেতৃবৃন্দ মরহুমদ্বয়ের রূহের মাগফেরাত কামনা করেন ও তাদের শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান। নেতৃবৃন্দ মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের কাছে দোয়া করেন, আল্লাহ যেন তাদের নেক আমলসমূহ কবুল করে জান্নাতবাসী করেন এবং তাদের পরিবার ও আত্মীয় স্বজনকে ধৈর্য ধারণ করার তৌফিক দান করেন।

বদরে আলম রোববার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টায় বার্ধক্যজনিত কারণে নিজ বাসায় ইন্তেকাল করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তিনি দীর্ঘদিন যাবৎ বার্ধক্যজনিত নানা রোগে আক্রান্ত ছিলেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯২ বছর। মরহুমের নামাজে জানাজা আজ সোমবার সকাল ১০টায় তার ঢাকার লালবাগ বাসা সংলগ্ন মসজিদে অনুষ্ঠিত হয়। মরহুম বদরে আলম কর্মজীবনে আধুনিক প্রকাশনীর সাবেক জেনারেল সেক্রেটারি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। তার পরিবার-পরিজনসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রয়েছে।

অপরদিকে, আকতার হোসাইন রোববার বিকাল ৫টায় রাজধানী ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬১ বছর। মরহুমের গ্রামের বাড়ি ফেনী জেলার ছাগলনাইয়া উপজেলাধীন রঘুনাথপুরে। মরহুমের নামাজে জানাজা আজ সোমবার সকাল ৭টায় তার গ্রামের বাড়িতে অনুষ্ঠিত হয় এবং জানাজা শেষে স্থানীয় কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন হয়। তার স্ত্রী, দুই ছেলেসহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন ও গুণগ্রাহী রয়েছে।

Leave A Reply