মেজর (অবঃ) সিনহার খুনিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে ডিএনএন নিউজ পরিবারের পক্ষ থেকে জোর দাবী করছি।

0

স্টাফ রিপোর্টার: মেজর (অবঃ) সিনহা মোঃ রাশেদ খাঁন একজন অত্যান্ত চৌকষ আর্মি অফিসার ছিলেন। তিনি বিএমএ লং কোর্সের সাথে সেনাবাহিনীতে কমিশন লাভ করেন। এরপর ২০১৮ সালে তিনি অবসরে যান যান। কিন্তু অবাক করার বিষয় হলো কক্সবাজারে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর (অবঃ) সিনহা কে গুলি করে হত্যার ঘটনায় প্রতিরক্ষা গোয়েন্দা মহাপরিদপ্তরের (ডিজিএফআই) একটি গোপন তদন্ত প্রতিবেদনে স্থানীয় পুলিশের বিরুদ্ধে সন্দেহভাজন অপরাধীদের বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের অভিযোগ আনা হয়েছে। এতে ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে যে, “হত্যার প্রতিযোগিতা[য়]” লিপ্ত থাকা পুলিশ একজন অবসরপ্রাপ্ত সামরিক কর্মকর্তাকে হত্যায়ও দ্বিধা করেনি।

মেজর (অবঃ) সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খাঁন নামক ওই কর্মকর্তাকে হত্যার ঘটনায় কক্সবাজার পুলিশ যেই বিবৃতি দিয়েছে, সেটির সঙ্গে ডিজিএফআইর করা মাঠ প্রতিবেদনটি সাংঘর্ষিক। পুলিশ দাবি করেছে, পুলিশের একটি বহর মেজর (অবঃ) সিনহার গাড়ি তল্লাশি করতে চাইলে তিনি নিজের ব্যক্তিগত অস্ত্র বের করেন। এ সময় আত্মরক্ষার জন্য পুলিশ গুলি করে।

তবে প্রত্যক্ষদর্শী ও ভিডিও ফুটেজের বরাত দিয়ে সামরিক গোয়েন্দা সংস্থার প্রতিবেদনে বলা হয়, মেজর (অবঃ) সিনহা তার অস্ত্র বের করেননি। যখন তাকে গাড়ি থেকে বের হতে বলা হয়, তখন তিনি হাত উঁচু করে বের হন। এরপর কোনো বাতচিত ব্যতিরেকেই তাকে গুলি করে হত্যা করেন পুলিশবহর প্রধান এসআই লিয়াকত। প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, গুলিবিদ্ধ হওয়ার পরও ৪৫ মিনিট ধরে মেজর (অবঃ) সিনহাকে হাসপাতালে না নিয়ে ঘটনাস্থলেই ফেলে রাখে পুলিশ, “পুলিশ কর্তৃক ইচ্ছাকৃতভাবে বিলম্ব করে মৃত্যু নিশ্চিত করে মৃতদেহ হাসপাতালে আনা একটি পৈশাচিক আচরণের বহিঃপ্রকাশ।”

এই বিষয়ে ডিএনএন নিউজের সম্পাদক মোঃ আবদুর রহমান খোকা বলেন-এই তথ্যের আলোকে বুজা যাই যে এটি একটি সুপরিকল্পিত হত্যাকান্ড এবং ঠান্ডা মাথায় একজন মানুষ কে সম্পূর্ণ বিনা অপরাধে খুন করা হয়েছে। যা কোন ভাবেই পুলিশের পেশাদারিত্বের পরিচয় বহন করে না। তাই ডিএনএন নিউজের সম্পাদক মোঃ আবদুর রহমান খোকা অভিলম্বে মেজর (অব:) রাশেদের খুনি সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তারসহ দৃশতান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করার জোর দাবী করেন। এ ছাড়াও তিনি মেজর (অবঃ) সিনহার শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানানের পাশাপাশি বলেন এখনি সময় আসুন সবাই আওয়াজ তুলি যে কোন ধরণের বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড অবিলম্বে বন্ধ হোক।

Leave A Reply